ফিরে যেতে চান

(রাসিক ওয়ার্ড পরিসংখ্যান ২০১১ অনুযায়ী)

নানকিং দরবার হল, মনিবাজার (ছবি- ২০১৬)

চিনা খাবারের প্রবর্তক এহসানুল হুদা দুলু লক্ষ্মীপুর গ্রেটাররোডে নানকিং কমিউনিটি সেন্টার স্থাপন করে রাজশাহীতে কমিউনিটি সেন্টারের সূত্রপাত করেন। ১৯৯৩ সালে সেটা শালবাগানে বড় পরিসরে স্থানান্তর করা হয়। ১৯৯৫ সালে রাজশাহী সরকারি মাদ্রাসার দক্ষিণে শাহমখদুম ইনস্টিটিউটে স্থানান্তর করা হয়। ২০০৫ সালে নানকিং কমিউনিটি সেন্টার বিলুপ্ত করে মনি বাজারে নানকিং চাইনিজ রেস্টুরেন্টের সঙ্গেই আধুনিক মানের নানকিং দরবার হল স্থাপন করা হয়েছে। পরবর্তিতে বিভিন্ন সময়ে মালোপাড়ায় অনুরাগ, রাজশাহী কলেজের বিপরীত পাশে স্বপ্নিল (বিলুপ্ত), কাজীহাটায় ইয়াংকিং (বর্তমানে মিশন হাসপাতালের বিপরীত পাশে), শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান কেন্দ্রীয় উদ্যান ও চিড়িয়াখানা পূর্ব পাশ সানসি (নাম পরিবর্তিত হয়েছে), জেলা স্টেডিয়ামের বিপরীত পাশে সপুরায় জিসা, শালবাগানে অপূর্ব, বোসপাড়ায় পদ্মা, গ্রেটার রোড কাদিরগঞ্জে সাফাওয়াং, শালবাগান বিডিআর গেট সংলগ্ন চায়না গার্ডেন কমিউনিটি সেন্টার স্থাপিত হয়।
০১.     নানকিং কমিউনিটি সেন্টার, মনিবাজার 
০২.     উত্তরা কমিউনিটি সেন্টার, শ্রীরামপুর 
০৩.     প্যালেস কমিউনিটি সেন্টার, শ্রীরামপুর 
০৪.    চতুর্থ শ্রেণি কর্মচারী কমিউনিটি সেন্টার কাম অডিটোরিয়াম, জেলা শিল্পকলা একাডেমির পাশে, ১৯৯০
০৫.     জমজম কমিউনিটি সেন্টার, কাজীহাটা, ঝাউতলা মোড় সংলগ্ন, রাজশাহী, ২০০৫
০৬.     ইয়াং কিং কমিউনিটি সেন্টার, চণ্ডিপুর (কলিমাতা মন্দিরের এর পূর্ব পাশে), কাজীহাটা রাজপাড়া, রাজশাহী, ২০০৮
০৭.     অনুরাগ কমিউনিটি সেন্টার, মালোপাড়া
০৮.     মুন লাইট কমিউনিটি সেন্টার, সাহেব বাজার
০৯.    স্বপ্নীল কমিউনিটি সেন্টার, কাদিরগঞ্জ, ২০০০
১০.    আরবান কমিউনিটি সেন্টার, বখতিয়ারাবাদ, সপুরা, বোয়ালিয়া, রাজশাহী, ২০০৩
১১.     রাজিয়া কমিউনিটি সেন্টার, শালবাগান, সপুরা, বোয়ালিয়া, রাজশাহী    ২০০৮
১২.     পার্টি পয়েন্ট কমিউনিটি সেন্টার, শালবাগান, সপুরা, বোয়ালিয়া, রাজশাহী
১৩.     পদ্মা কমিউনিটি সেন্টার, সাগরপাড়া, ২০০৩
১৪.     সোহাগ কমিউনিটি সেন্টার, সাগরপাড়া, ২০০৫
১৫.     বিহাস  কমিউনিটি সেন্টার, বিহাস, চৌদ্দপাই, রাজশাহী