ফিরে যেতে চান

বার্গার, স্যানডুইচ, হটডগ, পিজা, ফ্রাইড চিকেন ইত্যাদি থাই, চিনা, ইউরোপীয় আদলে তৈরি খাবারগুলো ফাস্টফুড নামে পরিচিত। রাজশাহী মহানগরীতে গত শতাব্দির আশির দশকের শুরুতেই ফাস্টফুডের পৃথক দোকানের সূচনা হয়। উল্লেখযোগ্য ফাস্টফুডের দোকান চিলিসের স্বত্বাধিকারী কুমারপাড়া নিবাসী হাসিনুর রহমানের (৩৪) তথ্যানুসারে, তাঁর আত্নীয় কুমারপাড়া নিবাসী মনসুর রহমান ১৯৮১/৮২ সালের দিকে সমবায় সুপার মার্কেটে ‘সেবরি স্ন্যাকস কর্ণার’ নামে রাজশাহীতে প্রথম ফাস্টফুডের দোকান স্থাপন করেছিলেন। দোকাটি আনুমানিক ৬ মাস চলেছিল। পরে সেখানে পেপারের দোকান দেয়া হয়েছিল। এর পর তিনি ১৯৯৮ সালের ৩ ডিসেম্বর সাহেব বাজার বড় রাস্তার মোড়ে চিলিস প্রতিষ্ঠা করেন। এরপর নিউ মাকের্টে স্থাপিত হয় কুচকুচ (পরিবর্তিত নাম ইয়াং ইয়াং)। ২০০২/২০০৩ সালের দিকে সোনাদিঘির মোড়ের দক্ষিণ পাশের দোতলায় গুডিজ (পরিবর্তিত নাম হবনব), জিরো পয়েন্টের পাশে মিটলফ, বিশাল স্থাপিত হয়। বড়কুঠিতে পদ্মা গার্ডেন, কাজলায়ও ফাস্টফুডের দোকান আছে।

রাজশাহী মহানগরীর চিলিস নামের একটি ফাস্টফুডের দোকান (ছবি- জানুয়ারি ২০১৭)