ফিরে যেতে চান

রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুল ও রাজশাহী কলেজের উত্তর পাশে এ স্কুলটি অবস্থিত। গরিব ছেলেদের লেখাপড়ার সুযোগ দানের অভিপ্রায়ে পাবনা জেলার শীতলাইয়ের দানশীল জমিদার রায় লোকনাথ মৈত্রেয় ১৮৪৬ সালে ‘ইংরেজি-বাঙলা স্কুল’ নামে যে একটি স্কুলের সূচনা করেছিলেন তাই বর্তমানে ‘লোকনাথ হাই স্কুল’ নামে পরিচিত। বর্তমানে এ স্কুলের পুরাতন অনেক স্থাপনাই সংস্কার কিংবা ভেঙে ফেলে নতুন নতুন ভবন নির্মিত হলেও পুরাতন তিনটি ব্লক এখনো রয়ে গেছে। কেন্দ্রস্থলে একটি উন্মুক্ত মাঠকে কেন্দ্র করে নির্মিত পূর্বমুখী এ স্কুল ভবনের পুরাতন ব্লক তিনটি হলো মূল প্রবেশপথ ব্লক এবং মাঠের পশ্চিম ও উত্তর ব্লক। ব্লক তিনটি দ্বিতল বিশিষ্ট। উত্তর ব্লকের নিচতলার পূর্ব-পশ্চিমে টানা বারান্দা নয়টি খিলানপথে উন্মুক্ত এবং দ্বিতলের বারান্দা চতুষ্কোণা স্তম্ভের সাথে রেলিং দ্বারা বেষ্টিত। বারান্দার সাথে উভয় তলায় তিনটি করে ছয়টি কক্ষ বিদ্যমান। পশ্চিম ব্লকের উভয় তলার উত্তর-দক্ষিণে টানা বারান্দাটি ছয়টি করে খিলানপথে উন্মুক্ত এবং দ্বিতলের বারান্দার খিলানসমূহ রেলিং বেষ্টিত। এ ব্লকের উভয় তলায় দুটি করে মোট চারটি কক্ষ বিদ্যমান। কক্ষগুলো শিক্ষক বিশ্রামাগার ও প্রধান শিক্ষকের অফিস হিসেবে ব্যবহৃত হয়। 

লোকনাথ হাই স্কুলের সম্মুখাংশ (পূর্ব পাশ)

অন্যদিকে পূর্ব ব্লকের কেন্দ্রস্থলে স্কুলে প্রবেশের সুবিশাল ফটক এবং নিচ ও উপর তলায় দুটি করে চারটি কক্ষ বিদ্যমান। ফটকের উপরে ছাদপ্রান্তে স্থাপিত একটি ত্রিকোণার কাঠামোতে (pediment) ইংরেজিতে স্কুলটির নামকরণ ‘Rajshahi Loknath School’ উৎকীর্ণ রয়েছে। ভবনটির উত্তর দিকেও অনুরূপ কাঠামোতে স্কুলের নাম লেখা আছে। যা বর্তমান বাণিজ্যিক ভবনে আড়াল হয়ে পড়েছে। প্রতিটি ব্লকের ছাদ লোহা ও কাঠের তৈরি তীর-বর্গার সমন্বয়ে সমতল ছাদে আচ্ছাদিত এবং সমগ্র ইমারত ইট ও চুন-সুরকি দিয়ে নির্মিত। স্কুলটি ১৮৪৬ সালে প্রতিষ্ঠা লাভ করলেও বর্তমানে সংরক্ষিত তিনটি ব্লক বিংশ শতকের প্রথম দশকে নির্মিত বলে অনুমিত হয়।