ফিরে যেতে চান

সমতলছাদ বিশিষ্ট মদন-গোপাল দেব ঠাকুর মন্দির, হড়গ্রাম বাজার

পূর্বমুখী এ মন্দিরটি রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানার অন্তর্গত হড়গ্রাম বাজারে (কোর্ট সংলগ্ন) পদ্মকামিনী এস্টেটের মন্দির কমপ্লেক্সে অবস্থিত। মন্দিরটির পূর্ব পাশে শিবমন্দির ও উত্তর পাশে একটি দুর্গা মন্দির বিদ্যমান। সম্প্রতি দুর্গামন্দিরটি ভেঙে ফেলে নতুনভাবে নির্মাণ করা হচ্ছে। আয়তাকার পরিকল্পনায় নির্মিত এ মন্দিরটি এক সারিতে তিনটি কক্ষ এবং সম্মুখে একটি বারান্দায় বিভক্ত। কেন্দ্রীয় কক্ষটি গর্ভগৃহ এবং গর্ভগৃহের পাশের দুটি কক্ষের দক্ষিণেরটি ভোগঘর এবং উত্তরেরটি স্টোর রুম হিসেবে ব্যবহৃত হয়। গর্ভগৃহের আয়তন ৩.৪৫X৩.১০ মি. এবং পাশের দুটি কক্ষের আয়তন যথাক্রমে ৩.১০X১.৯৮ মি.। প্রতিটি কক্ষের সম্মুখে একটি করে প্রবেশপথ এবং গর্ভগৃহের মধ্যস্থলে একটি বেদীর উপর রাধা-কৃষ্ণ ও এর উভয় পাশে গৌর-নিতাইয়ের বিগ্রহ স্থাপিত রয়েছে। 

সংস্কারের পূর্ববর্তী মদন-গোপালদেব ঠাকুর মন্দির, হড়গ্রাম বাজার (পূর্ব দিক হতে)

গর্ভগৃহের দক্ষিণ দেয়ালে পাশের কক্ষের সাথে একটি জানালা বিদ্যমান। অন্যদিকে সম্মুখস্থ বারান্দাটি (৮.৫৪X২.৪৪ মি.) তিনটি স্তম্ভ-সর্দল বিশিষ্ট প্রশস্ত প্রবেশপথে উন্মুক্ত। বারান্দায় ওঠার জন্য সম্মুখে দুই ধাপ বিশিষ্ট একটি সিঁড়ি বিদ্যমান। মন্দিরের অন্তরস্থ উপরিভাগ ছই আকৃতির খিলানছাদে অচ্ছাদিত হলেও বহির্ভাগ সমতলাকারে নির্মিত এবং সম্মুখাংশ একটি ত্রিকোণাকার কাঠামোতে (পেডিমেন্ট) সজ্জিত। মন্দিরটিতে পলেস্তারার আস্তরণ ছাড়া উল্লেখযোগ্য কোন অলংকরণ পরিলক্ষিত হয় না। এ মন্দিরটিও পাশের শিবমন্দিরের সমসাময়িক কালে অর্থাৎ বিংশ শতকের প্রথম দিকে নির্মিত বলে অনুমিত হয়। সম্প্রতি সংস্কার করে টাইলস বসানো হয়েছে।