ফিরে যেতে চান

রাজশাহী কৃষি উন্নয় ব্যাংক (রাকাব)

রাকাব ভবন, বিমান বন্দর রোড (ছবি- জানুয়ারি ২০১৭)

রাজশাহী কৃষি উন্নয় ব্যাংকের বর্তমান প্রধান কার্যালয় বিমান বন্দর রোডে ২৭২, বনলতা বাণিজ্যিক এলাকায়। রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ২০১১ সালের ২০ নভেম্বর এ নতুন ভবন উদ্বোধন করেন। ৯ নভেম্বর ২০১৪ তারিখে প্রাপ্ত তথ্যানুয়ায়ী রাকাবের বর্তমান শাখার সংখ্যা ৩৭৬ টি। এর মধ্যে রাজশাহী মহানগরীতে শাখার সংখ্যা ৫টি। রাজশাহী শাখা (মালোপাড়া), স্থানীয় মুখ্য কার্যালয় (প্রধান কার্যালয়), গ্রেটার রোড শাখা (কাজীহাটা ১০ তলা ভবন), পবা শাখা ও বিনোদপুর শাখা। এছাড়া রাজশাহী মহানগরীতে এর আরো কিছু কার্যালয় আছে। যেমন কাজীহাটা ১০ তলা ভবনেই আছে বিভাগীয় ও জোনাল কার্যালয়। কেন্দ্রীয় গুদাম ও রেষ্ট হাউস উপশহরে অবস্থিত। প্রশিক্ষণ ইনিস্টিটিউটও উপশহরে।
১৯৭৫ সালে রাজশাহীতে কৃষি উন্নয়ন ঋণদান সংস্থার ১টি অফিস স্থাপন করা হয়। এর প্রধান ছিলেন উপ প্রধান আঞ্চলিক অফিসার। ১৯৬০ সালে এ পদটিকে উন্নীত করে আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক নিয়োগ করা হয়। ১৯৬১ সালে কৃষি উন্নয়ন ঋণদান সংস্থা ও কৃষি ব্যাংক একত্রিত করে নাম দেয়া হয় কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক।২ দেশ স্বাধীনের পর পাকিস্তান কৃষি উন্নয়ন ব্যাংককে বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক নামে অভিহিত করা হয়। ১৯৭৩ সালে রাষ্ট্রপতির ২৭নং অধ্যাদেশ বলে এর নামকরণ হয় বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক।৪২ ১৯৮৬ সালে সরকারের বিকেন্দ্রীকরণ নীতির ভিত্তিতে সে সময় দেশের ৪টি বিভাগে ৪টি স্বতন্ত্র কৃষি ব্যাংক প্রতিষ্ঠার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এর প্রেক্ষিতে রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশ ১৯৮৬ (নম্বর-58/1986) অনুসারে ১৯৮৭ সালের ১৫ মার্চ রাজশাহী বিভাগের এলাকায় বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক পৃথক হয়ে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক নামে একটি স্বতন্ত্র ব্যাংক প্রতিষ্ঠা লাভ করে।৩ ১৯৮৭ সালের ১৫ মার্চে এ ব্যাংকের মোট ঋণ ও অগ্রিমের পরিমাণ ছিল ৫১.৮৩ কোটি টাকা। এ ব্যাংক উত্তরাধিকার সূত্রে ২৫৩টি শাখা, ১৬টি আঞ্চলিক অফিস, ১৮টি আঞ্চলিক নিরীক্ষা অফিস, ২টি জোনাল অফিস, ১টি আঞ্চলিক ট্রেনিং অফিস ও ১টি বিভাগীয় অফিস লাভ করে। সর্বসাধারণের সুবিধার উদ্দেশ্যে গতিশীল ব্যাংকিং সেবার জন্য একটি প্রশাসনিক স্তর কমিয়ে বিভাগীয় অফিসটি বিলুপ্ত করা হয় এবং বিভাগীয় অফিসের ৩০ জন কর্মচারী নিয়ে ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় শুরু হয় মহানগরীর কাজীহাটায় এবং ১৯৮৮ সালে ১০তলা ভবনে স্থানান্তর হয়। বর্তমানে বিমান বন্দর রোডে আরডিএ ভবনের উত্তর পাশে।


রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের ঋণ প্রদানের উল্লেখযোগ্য খাত

1.    কৃষি ঋণ কর্মসূচি: শস্য, সেচ, যন্ত্রপাতি ক্রয়, খামার যন্ত্রপাতি ক্রয়, হালের বলদ ক্রয়, গাভী পালনও হাঁস-মুরগির খামার, গভীর ও অগভীর নলকূপ সদ্ব্যবহার, পল্লী পরিবহণ, সার ও কীটনাশক ঔষধ বিতরণ, হর্টি কালচার।
2.    কৃষিভিত্তিক ক্ষুদ্র শিল্প: হিমাগার, চাউলের কল, প্রকৌশল কারখানা, করাত কল, কৃষিজাত পণ্য প্রক্রিয়াকরণ ও বাজারজাতকরণ।
3.    কুটির শিল্প ও আর্থ-সামাজিক কর্মকা-: ইউএনসিডিএফ ও বিসিকের সহায়তায় গ্রামীণ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পোন্নয়ন, ইউএসআইডি ও বিসিকের সহায়তায় গ্রামীণ মহিলা শিল্পোদ্যোক্তা কর্মসূচি, সুইস সরকারের সহায়তায় কৃষিপণ্য সংরক্ষণ প্রকল্প, আইফাদ ও জার্মান সরকারের সহায়তায় প্রান্তিক ও ক্ষুদ্র খামার  পদ্ধতির মাধ্যমে শস্য নিবিড়করণ প্রকল্প, আরডিআরএস এর সহায়তায়  ট্রেডল পাম্প ও লোকস্ট স্যালো টিউবওয়েল ঋণ কর্মসূচি ও স্বনির্ভর বাংলাদেশ ঋণ কর্মসূচি।
রাকাবের পরিচালনা পরিষদ: ১জন চেয়ারম্যান ও ৬ জন পরিচালকসহ মোট ৭ জন সদস্য বিশিষ্ট পরিচালনা পরিষদ গঠিত।৩
রাকাবের শাখা: রাকাবের মোট শাখা ৩৭৬টি। এরমধ্যে রাজশাহী মহানগরীতে শাখা অফিস ৭টি।
1.    রাকাব রাজশাহী শাখা, মালোপাড়া।
2.    স্থানীয় মুখ্য কার্যালয়, ১০তলা ভবন, গ্রেটার রোড, কাজীহাটা।
3.    পবা শাখা (নওদাপাড়া বাজার)।
4.     জোনাল কার্যালয়, ১০তলা ভবন, কাজীহাটা।
5.    আঞ্চলিক নিরীক্ষা কার্যালয়, ১০তলা ভবন, কাজীহাটা।
6.    প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট, উপশহর (কাস্টম অফিসের পাশে)।
7.     কেন্দ্রীয় গুদাম ও রেস্ট হাউস, উপশহর।