ফিরে যেতে চান

পূবালী মার্কেট: মার্কেটটি শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান বাস টার্মিনাল সংলগ্ন পূর্বপাশে। রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ১৯৯১-১৯৯২ সালে নির্মাণ করে। একতলা বিশিষ্ট এ মার্কেটের দোকানের সংখ্যা ২১ টি। আয়তন ৪৯২ বর্গমিটার। ব্যয় হয় ৩৫লাখ ২২ হাজার টাকা।২৮ 
গোধুলী বহুতল মার্কেট: পিপিপি পদ্ধতিতে শিরোইলস্থ ঢাকা টিকেট কাউন্টারের পশ্চিমে বাণিজ্যিক স্পেস/দোকান এর ব্যবস্থা রেখে চারতলা বিশিষ্ট মার্কেট ২০১০ সালে একাংশ নির্মাণ করা হয়েছে এবং সম্প্রসারণ কাজ চলছে। মার্কেটটি নির্মাণের ফলে প্রায় ৫০০ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর কর্মসংস্থান হয়েছে। (বরেন্দ্রের বাতিঘর অগ্রযাত্রার ৫ বছর ২০১৩) 
মহানন্দা বহুতল সুপার মার্কেট: পিপিপি পদ্ধতিতে মহানন্দা আবাসিক এলাকার বানিজ্যিক স্পেসে ৬ তলা বিশিষ্ট বানিজ্যিক কমপ্লেক্স নির্মাণ কাজ চলছে। আগামী জুন ২০১৪ এর মধ্যে নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হলে চন্দ্রিমা আবাসিক এলাকা, মহানন্দা আবাসিক এলাকাসহ আশেপাশের জনগণের বানিজ্যিক চাহিদা পুরণে সহায়ক হবে। (বরেন্দ্রের বাতিঘর অগ্রযাত্রার ৫ বছর ২০১৩)   
সাহেব বাজারে অবস্থিত আরডিএ মার্কের্টের দক্ষিণ প্লাজা: রাজশাহী শহরের প্রাণকেন্দ্র সাহেব বাজার এলাকায় ৭ তলা বিশিষ্ট বাণিজ্যিক কমপ্লেক্স নির্মাণ কাজ চলছে। আগামী ডিসেম্বর ২০১৩ এর মধ্যে নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হলে প্রায় ১০০০ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর কর্মসংস্থান হবে এবং বাণিজ্যিক এলাকার পরিবেশ নিশ্চিত হবে। শহরবাসী পণ্য-সামগ্রী ক্রয় ও বিক্রয়ে পরিচ্ছন্ন সুযোগ  পাবেন। (বরেন্দ্রের বাতিঘর অগ্রযাত্রার ৫ বছর, রাসিক ২০১৩)