ফিরে যেতে চান

আঞ্চলিক কৃষি তথ্য সার্ভিসের আঞ্চলিক কৃষি তথ্য অফিস মহানগরীর মিশন মোড়ে একটি ভাড়া বাড়িতে অবস্থিত। ১৯৮৬ সালে কৃষি মন্ত্রণালয়ের নির্দেশক্রমে বগুড়া থেকে রাজশাহী মহানগরীর কাজীহাটায় টিভি স্টুডিওর বিপরীতে ইয়াং কিং চাইনিজ রেস্টুরেন্ট বাড়িটিতে স্থানান্তরিত হয়। এ জায়গাটিতে এখন রেস্টুরেন্টও নাই। অফিসটি সম্ভবত ১৯৯২ সালে লক্ষ্মীপুর ঝাউতলা মোড়ের পূর্ব পাশে, ১৯৯৮ সালে  চ-িপুর কদমতলার মোড়ে (বর্তমান উদয়ন ডেন্টাল কলেজ) এবং ২০০৬ সালে বর্তমান বাড়িতে স্থানান্তরিত হয়।৩৪৬

১৯৬১ সালে এ সার্ভিস কৃষি তথ্য সংস্থা নামে আত্ম প্রকাশ করে। তবে সর্ব প্রথম এটা ব্রিটিশ আমলে কৃষি ডাইরেক্টরেটে প্রপাগান্ডা অফিসের পদ সৃষ্টির মাধ্যমে কার্যক্রম  চালানো হতো।২৫ পরবর্তীতে পদটিকে পাবলিক রিলেশনস অফিসার পদে  রূপান্তর করা হয়। ১৯৬১ সালে কৃষি তথ্য সংস্থা একটি স্বতন্ত্র দপ্তর রূপে আত্মপ্রকাশ করে। ২০১৪ সালের কৃষি ডায়রীতে উল্লেখ আছে ১৯৮০ সালে একে কৃষি তথ্য  সার্ভিস নামকরণ করা হয়। তবে ১আগস্ট ১৯৮৮ তারিখে যোগদানকৃত কৃষি তথ্য কেন্দ্র সংগঠক (এআইসিও) মো. সাহারুজ্জামানের অ্যাপোয়েন্টমেন্ট লেটারে অধিদপ্তরের নাম অঞ্চলিক কৃষি তথ্য সংস্থা উল্লেখ আছে। ১৯৮৬ সালের শেষের দিকে কৃষি তথ্য সার্ভিসকে দ্বিধা বিভক্ত করে মোট ১১টি আঞ্চলিক দপ্তরের মধ্যে ৭টি আঞ্চলিক দপ্তর কৃষি তথ্য সার্ভিস থেকে বিচ্ছিন্ন করে মৎস্য ও পশু সম্পদ মন্ত্রণালয়ের আওতায় আনা হয়। এর প্রেক্ষিতে ঐ সালেই বগুড়ার আঞ্চলিক কৃষি তথ্য সার্ভিসকে রাজশাহীতে স্থানান্তর করা হয়। ২৬ নভেম্বর ২০০২ তারিখে প্রাপ্ত তথ্যানুসারে আঞ্চলিক কৃষি তথ্য অফিসের প্রধান হলেন আঞ্চলিক কৃষি তথ্য অফিসার। এছাড়া ১ জন সহকারী প্রদর্শনী বিশেষজ্ঞ, ৩ জন কৃষি তথ্য কেন্দ্র সংগঠক, ১ জন কারিগরি সংগঠক, ১ জন ক্যাশিয়ার, ১ জন ক্লার্ক, ২ জন অডিও ভিজ্যুয়াল ইউনিট অপারেটর, ১ জন মেকানিক ও ২ জন অফিস সহায়ক আছেন। 
এর প্রশাসনিক কার্যক্রম রাজশাহী, নওগাঁ, নাটোর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, বগুড়া ও জয়পুরহাট জেলা নিয়ে। মূল কাজ হলো কৃষি বিষয়ক তথ্য প্রচার ও প্রকাশনা। কাজগুলো প্রিন্ট মিডিয়া ও ইলেট্রোনিক মিডিয়া এ দু’ধারায় সম্পন্ন হয়। প্রিন্ট মিডিয়ার মধ্যে রয়েছে কৃষি কথা নামের কৃষি বিষয়ক ম্যাগাজিন, সম্প্রসারণ বার্তা, ফোল্ডার, লিফলেট, বুকলিট, ফ্লিপ চার্ট, পোস্টার, বিজ্ঞাপন, কৃষি ডায়রী প্রভৃতি প্রকাশনা।ইলেকট্রেনিক মিডিয়ার মধ্যে বেতার কৃষি কার্যক্রম, টেলিভিশনে মাটি ও মানুষ অনুষ্ঠান, কৃষি বেতার প্রামাণ্য চিত্র, ভিডিও প্রদর্শনী, সিনেমা স্লাউড, অডিও টেপ, ক্লিপ স্ট্রিট, কম্পিউটার প্রভৃতি।২৫ রাজশাহী আঞ্চলিক অফিসের সহযোগিতায় বাংলাদেশ বেতার রাজশাহী গ্রীষ্মকালে প্রতিদিন সকাল ৬.২৫ হতে ৬.৩০টা ও শীতকালে সকাল ৬.৫৫ হতে ৭.০০ টা পর্যন্ত কৃষি বিষয়ক অনুষ্ঠান সবুজ বাংলা প্রচার করে। বিটিভিতে সকালে প্রচার করা হয় বাংলার কৃষি অনুষ্ঠান।