ফিরে যেতে চান

গ্রামীণ ফোনের মাধ্যমে রাজশাহী মহানগরীতে মোবাইল ফোনের কার্যক্রম আরম্ভ হয় ২০০১ সালের ১১ মার্চ। এর ফলে রাজশাহী মহানগরীতে টেলি যোগাযোগের ক্ষেত্রে এক নতুন ধারার প্রবর্তন হয়। গ্রামীণ ফোনের মাধ্যমে মোবাইল টু মোবাইল ছাড়া পাবলিক সার্ভিস টেলিফোন ব্যবস্থায় মোবাইল টু ডিজিটাল ফোনেও (টি এ্যান্ড টি সাধারণ ফোন) কথা বলা যায়। এ ফোনের মাধ্যমে মোবাইল টু মোবাইল টেক্সট মেসেজ পাঠানো যায়।
এ ফোন প্রবর্তনের ফলে টিএন্ডটি ফোনের সংযোগ দেয়া যেখানে সম্ভব নয় সে সব জায়গার অধিবাসীরা টেলি যোগাযোগের সুবিধা পাচ্ছে এবং টিএন্ডটি এর উপর গ্রাহকদের চাপ অনেকটা লাঘব হয়েছে। গ্রামীণ ফোন ঢাকা অফিসের ১ জানুয়ারি ২০০৩ তারিখের তথ্যানুসারে শুরু থেকে ২০০২ পর্যন্ত রাজশাহী মহানগরীতে এ ফোনের গ্রাহক সংখ্যা ছিল প্রায় ৩ হাজার এবং রাজশাহী বিভাগে প্রায় ৩০ হাজার । সারা বাংলাদেশে এ ফোনের গ্রাহকের বৃদ্ধির হার শতকরা ৫৭ ভাগ। উক্ত তারিখের তথ্যানুসারে রাজশাহী মহানগরীতে গ্রামীণ ফোনের প্রথম অফিসটি উপশহর হাউজিং এস্টেটের ২নং সেক্টরে ২৭২ নং বাড়িতে ছিল। পরবর্তীতে উপশহর নিউমার্কেটের পশ্চিম পাশে এর একটি নতুন অফিস খোলা হয়। বর্তমানে একমাত্র অফিস সাহেব বাজার আলুপট্টির দৈনিক বার্তা ভবনে।