ফিরে যেতে চান

১৯২০ সালে রাজশাহী মুসলিম গোরস্থান সমিতি গঠন হয়। মানবিক সেবা কার্যক্রমে রাজশাহী মহানগরীতে এ সমিতি ভূমিকা ছিল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সমিতি প্রতিষ্ঠার পূর্বে হাসপাতালের মৃত ও শহরের মৃত বেওয়ারিশ লাশগুলোকে পদ্মার স্রোতে ভাসিয়ে দেয়া হতো। এ সমিতি প্রতিষ্ঠার পর এ সব লাশ কাদিরগঞ্জ, টিকাপাড়া, গোরহাঙ্গা প্রভৃতি গোরস্থানে ইসলামী রীতি অনুসারে দাফন করার ব্যবস্থা করা হয়। কাদিরগঞ্জ গোরস্থানটি এ সমিতি দ্বারা পরিচালনা করা হতো। এর প্রথম সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ছিলেন যথাক্রমে আব্দুল খালেক ও শেখ ওমেদ আলী।১  এর কার্যালয় হেতমখাঁয়ে অবস্থিত।৩ হেতমখাঁ চৌরাস্তার মোড়ের সদর হাসপাতালের বিপরীতে এর সাইন বোর্ডটি পথচারীদের নজরে পড়ে।