ফিরে যেতে চান

স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর

স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রশাসনিক বিভাগীয় অফিস ও জেলা অফিস নিজস্ব একই ভবনে অবস্থিত। ভবনটি সদর হাসপাতাল ক্যাম্পাসের দক্ষিণ অংশে প্রফেসরপাড়ায়। বিভাগীয় অফিসের প্রধান হলেন নির্বাহী প্রকৌশলী এবং মুঞ্জুরীকৃত জনবল ১২জন। জেলা অফিস প্রধানের পদবি সহকারী প্রকৌশলী এবং জনবল সংখ্যা ৪ জন।
রাজশাহীতে জেলা অফিস স্থাপনের মাধ্যমে এ অধিদপ্তর কার্যক্রম শুরু করে ১৯৮২ সালে। একই সালে বগুড়াতে এর বিভাগীয় অফিস স্থাপন হয়। তৎকালীন রাজশাহী বিভাগের সব জেলা মিলে ছিল বিভাগীয় অফিসের প্রশাসনিক এরিয়া।
রাজশাহী মহানগরীতে ১৯৮২ সালে জেলা অফিসের যাত্রা শুরু হয়েছিল উপশহরে। কাদিরগঞ্জেও ছিল কিছুকাল। এরপর বিভিন্ন জায়গায় স্থানান্তরিত হয়ে বর্তমান নিজস্ব ভবনে আসে। প্রকৌশলী মো. সফি উদ্দিন ১৯৯৩ সালের ২৫ জানুয়ারি নির্বাহী প্রকৌশলী পদে যোগদানের মাধ্যমে রাজশাহীতে বিভাগীয় কার্যালয়ের যাত্রা শুরু হয়েছিল উপশহরে। ২০০০ সালে নিজস্ব ভবনে আসে। সে সময় বগুড়ার বিভাগীয় অফিস বিলুপ্ত ঘটে রাজশাহী ও রংপুর দুটি প্রশাসনিক বিভাগের উৎপত্তি ঘটে। রাজশাহী বিভাগের প্রশাসনিক এরিয়ায় ছিল রাজশাহী, নাটোর, নওগাঁ, চাঁপাই নবাবগঞ্জ, পাবনা, সিরাজগঞ্জ, বগুড়া ও জয়পুরহাট জেলা। ২০১০ সালের প্রথম দিকে বগুড়া, জয়পুরহাট ও সিরাজগঞ্জ জেলা নিয়ে পুনরায় বগুড়া বিভাগীয় অফিস গঠিত হয়। ২০১০ সালের দিকে পাবনা জেলাও বগুড়া বিভাগীয় অফিসের অন্তর্ভুক্ত হয়ে যায়। ফলে রাজশাহী বিভাগীয় অফিসের প্রশাসনিক এরিয়ায় থাকে ৪টি জেলা। বর্তমানে উত্তরাঞ্চলে বিভাগীয় অফিসের সংখ্যা ৪টি। অন্য ৩টি রংপুর, দিনাজপুর ও বগুড়ায়। প্রতিটারই প্রশাসনিক এলাকা ৪টি জেলা।
এ অধিদপ্তরের কাজ হলো গ্রামের সরকারি কমিউনিটি ক্লিনিক থেকে জেলা পর্যন্ত ১০০ শয্যা পর্যন্ত সকল হাসপাতাল বা স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলোর কন্সট্রাকশন, আপগ্রেডেশন, মেইটেনেন্স। রাজশাহী মহানগরীতে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ব্যতীত অন্যান্য সরকারি হাসপাতালগুলোয় এ অধিদপ্তর কাজ করে থাকে।৪৮০