ফিরে যেতে চান

বাংলাদেশ বেতার কেন্দ্র, রাজশাহী কাজীহাটায় অবস্থিত। আনসার ক্লাব ভবনে ১৯৫৪ সালের ৪ জুলাই অস্থায়ীভাবে এর কার্যক্রম শুরু হয়।৩  প্রথমে ১ কিলোওয়াট শক্তিসম্পন্ন একটি মধ্যম তরঙ্গের সম্প্রচার কেন্দ্র স্থাপন হয়েছিল। একটি মোবাইল ভ্যানে এর প্রচার কার্যক্রম পরিচালনা করা হতো।২ ১৯৫৬ সালে মার্চে কাজলার কুঠিবাড়িতে এর সম্প্রচার কেন্দ্র স্থানান্তর করা হয়। ১৯৬২ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বিপরীত পাশে ১০ কিলোওয়াট শক্তিসম্পন্ন তরঙ্গের সম্প্রচার কেন্দ্র স্থাপন করা হয়। সম্প্রচার কেন্দ্রটি ৫৫.৮৯ একর জমিতে অবস্থিত।৩৩১ ১৯৬৪ সালের ২৫ ডিসেম্বর কাজীহাটার বর্তমান ভবনে একটি পূর্ণাঙ্গ কেন্দ্র হিসেবে কাজ শুরু হয়। ১০ কিলোওয়াট রিলে স্টেশনের পাশাপাশি বগুড়ার কাহালুতে নির্মিত ১০০ কিলোওয়াট শক্তিসম্পন্ন রিলে স্টেশন হতে রাজশাহী বেতার কেন্দ্রের অনুষ্ঠান সম্প্রচার হচ্ছে। বগুড়ার কাহালু হতে রাজশাহী বেতার কেন্দ্রের দ্বিতীয় অধিবেশন ১৯৮৯ সালের ৩ মার্চ ও  তৃতীয় অধিবেশন ১৯৮৯ সালের ১৬ ডিসেম্বর হতে পরীক্ষামূলকভাবে সম্প্রচার হয়। ১৯৯০ সালের ১৮ জুন হতে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় অধিবেশনই নিয়মিতভাবে প্রচার শুরু হয়। প্রাথমিক পর্যায়ে ১০ কিলোওয়াট শক্তিসম্পন্ন মধ্যম তরঙ্গের আকাশ সীমার পরিধি ছিল ৪০ মাইল ও পরে ১০০ কিলোওয়াটের ৬৫ মাইল।২

বাংলাদেশ বেতার, কাজীহাটা, রাজশাহী

১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ তারিখে প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী বর্তমানে দুই অধিবেশনে অনুষ্ঠানে প্রচার করা হয়। শীতকালে সকাল ৬.৩০ টা হতে সকাল ১০টা দুপুর ১২ টা হতে রাত ১১.১০ টা এবং গ্রীষ্মকালে সকাল ৬টা হতে সকাল ১০টা, দুপুর ১২ টা হতে রাত ১১.১০ টা পর্যন্ত। ২০০৭ সালের ১৬ জুলাই মিডিয়ামওয়েভের পাশাপাশি এফএম ব্যান্ডে সম্প্রচার শুরু হয়। বর্তমানে এফ এম ১০৪,৮৮৮ এবং ৯০ মেগাহার্টসে অনুষ্ঠান প্রচার হচ্ছে।৩৩৩