ফিরে যেতে চান

শেখ মনিরুল ইসলাম আলমগীর ক্রীড়া পাঠাগার ও সংগ্রহশালা

মহানগরীর উত্তর অংশের ছোট বনগ্রামের শাহ্ মখদুম আবাসিক এলাকায় একটি তিনতলা বিশিষ্ট আবাসিক বাড়ির তৃতীয় তলায় শেখ মনিরুল ইসলাম আলমগীর ক্রীড়া পাঠাগার ও সংগ্রহশালা অবস্থিত। এর পূর্ব নাম ছিল স্পোর্টস মেমোরি ইন্টারন্যাশনাল লাইব্রেরি। গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি হাই স্কুলের তৎকালীন সহকারী শিক্ষক শেখ মনিরুল ইসলাম আলমগীর ব্যক্তিগত উদ্যোগে নিজ বাড়িতে লাইব্রেরিটি স্থাপন করেন। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী ২০১৪ সালে ১৩ মে উদ্বোধন করেন।৫৮৩ ২০১৭ সালের মার্চ মাসে আলমগীর জানান ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে লাইব্রেরির নাম পরিবর্তন করেন। আলমগীর শিক্ষকতার পাশাপাশি ক্রীড়ার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট। তিনি বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশন ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাহী কমিটির সদস্য। লাইব্রেরিতে আছে তিনটা স্টিলের আলমারি, তিনটা বুক সেলফ, কম্পিউটার, রিডিং টেবিল, চেয়ার ইত্যাদি। আলমারি ও সেলফগুলো বিভিন্ন ধরনের ক্রীড়া বিষয়ক বই, ম্যাগাজিন, ক্রীড়া ব্যক্তিত্বদের জীবনী ইত্যাদিতে পরিপূর্ণ। ক্রীড়া গবেষক, পাঠকরা এখানে সপ্তাহে তিন দিন শনি, রবি ও সোমবার পড়ার সুযোগ পান। লাইব্রেরির সঙ্গে আছে একটি হলরুম। সেখানে সভা, সেমিনারও করা যায়। ক্রীড়া বিষয়ক গ্রন্থ, ম্যাগাজিন ছাড়াও এখানে আছে বিভিন্ন ধরনের ক্রীড়া সামগ্রী, মেডেল, গল্প-উপন্যাসের বই। 

এ ভবনের তৃতীয় তলায় শেখ মনিরুল ইসলাম আলমগীর ক্রীড়া পাঠাগার ও সংগ্রহশালা
(ছবি-জানুয়ারি ২০১৭)