ফিরে যেতে চান

সরকারী টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট

এ প্রতিষ্ঠানটি রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের বিপরীত পাশে সিপাইপাড়ায় হাইওয়ের দক্ষিণ পাশ সংলগ্ন একটি ভাড়া বাড়িতে অবস্থিত। ১৯৯৭ সালে এ ইনস্টিটিউট চালু হয়। প্রথম সুপারিনটেনডেন্ট ছিলেন মো. আব্দুর রউফ। বিশ শতকের শুরুর দিকে ভ্রাম্যমান বয়ন শিল্প নামে যে কারিগরি প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান যাত্রা শুরু করেছিল, তারই অধুনা রূপ এ ইনস্টিটিউট। বয়ন শিল্প’র অফিস ছিল রাজশাহী মহানগরীতে এবং কার্যক্রম সচল ছিল তৎকালীন রাজশাহী জেলায় (বর্তমান রাজশাহী, নওগাঁ, নাটোর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা)। ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ তারিখে বর্তমান সুপারিনটেনডেন্ট মো. তাবারাকুল ইসলামের তথ্যানুসারে, এ ভ্রাম্যমান বয়ন শিল্পই অধুনা পদ্ধতিতে সরকারী টেক্সটাইল ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট নামে পুন:প্রতিষ্ঠিত হয়।
বর্তমানে এর শিক্ষার্থী ৯ম শ্রেণিতে ৯০ জন ও ১০ম শ্রেণিতে ৯০ জন। শিক্ষক ১৬ জন। ৯ম ও ১০ম শ্রেণিতে পড়ার পর বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে শিক্ষার্থীরা এসএসসি ভোকেশনাল সনদ অর্জন করে।৩০৭ ৮ম শ্রেণি পাস ১২ থেকে ১৮ বছরের প্রার্থীরা এখানে ভর্তির সুযোগ পায়। সাধারণ পঠিত বিষয় বাংলা, ইংরেজি, গণিত, ধর্ম, সামাজিক বিজ্ঞান, রসায়ন, পদার্থ, ব্যবসায় উদ্যোগ, উচ্চতর গণিত, বাণিজ্যিক ভূগোল, হিসাব বিজ্ঞান ইত্যাদি। টেকনিক্যাল বিষয় কম্পিউটার, ইঞ্জিনিয়ারিং, ড্রইং, ড্রেসমেকিং, ডাইং প্রিন্টিং অ্যান্ড ফিনিশিং, উইভিং, নিটিং।৩০৮