অধ্যায় ১৭: র্অথনীতি

বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিএমডিএ)


 (BMDA-Barind Multipurpose Development Authority)

মহানগরীর উপশহর আমবাগানে বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ অফিসের প্রধান কার্যলয় অবস্থিত। প্রাথমিকভাবে রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও নওগাঁ জেলার ১৫টি থানা নিয়ে ১৯৮৫ সালের জুনে বরেন্দ্র সমন্বিত এলাকা উন্নয়ন প্রকল্প নামে এর কার্যক্রম শুরু হয়।৩ ১৯৯১ সালের মার্চে বর্ধিত আকারে উক্ত জেলাসমূহের ২৫টি থানার ভারসাম্য রক্ষণ, মরুপ্রবণতা রোধ ও কৃষি ক্ষেত্রে সার্বিক উন্নয়নের লক্ষ্যে বরেন্দ্র সমন্বিত এলাকা উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নেয়া হয়। বর্তমানে উত্তরাঞ্চলের ১৬ জেলার ১২৫ টি উপজেলাই এর কার্যক্রম অব্যাহত আছে। 

বিএমডিএ ভবন, উপশহর আমবাগান (ছবি- জানুয়ারি ২০১৭)

প্রথমত বরেন্দ্র প্রকল্প বাস্তবায়ন দায়িত্ব ছিল বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন সংস্থা বা বিএডিসি’র উপর। এর প্রথম পর্যায়ের কাজ শেষ হয় ১৯৯০ সালে। প্রথম পর্যায়ের শেষ দু’বছর তৎকালীন সরকারের নীতি পরিবর্তনের ফলে প্রকল্পটির বাস্তবায়ন  কাজ প্রায় স্থবির হয়ে যায়। চতুর্থ পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা প্রণয়নকালে সরকার প্রকল্পটির ২য় পর্যায় বাস্তবায়নের জন্য অনুমোদন করে। বিএডিসির মাধ্যমে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের জন্য কৃষি মন্ত্রণালয়ের প্রত্যক্ষ নিয়ন্ত্রণে ১৯৯১-১৯৯২ সালে বরেন্দ্র উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ একটি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান গঠন করা হয়।
প্রকল্পের নিজস্ব রাজস্ব আয় হতে এ প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের বেতন ভাতা ও পরিচালনার ব্যয় নির্বাহ করা হয়।
বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ১৩ সদস্যের পরিচালনা পরিষদ দ্বারা এ প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম পরিচালনা হয়। তাঁরা হলেন সরকার কর্তৃক মনোনীত পরিষদের চেয়ারম্যান ১জন, রাজশাহী ডিআইজি, রাজশাহী-নওগাঁ-নাটোর-চাঁপাইনবাবগঞ্জ-পাবনা-বগুড়ার জেলা প্রশাসক, সরকার কর্তৃক মনোনীত ৩জন, কৃষি মন্ত্রালয়ের উপসচিব পর্যায়ের ১জন পরিষদের সদস্য এবং বিএম ডিএর নির্বাহী পরিচালক সদস্য সচিব। রাজশাহী, নওগাঁ, নাটোর, চাঁপাই নবাবগঞ্জ, পাবনা ও বগুড়া জেলার সকল সংসদ সদস্য এর উপদেষ্টা।২৮৮


রাজশাহীর কথা

আনারুল হক আনা

তৃতীয় সংস্করণ, এপ্রিল 2018

প্রকাশনা : DesktopIT


www.desktopit.com.bd