অধ্যায় ১৭: র্অথনীতি

বাণিজ্য ও কুঠি স্থাপন


পর্তুগিজ নাবিক ভাসকো দা গামা ১৪৯৮ সালে সমুদ্র পথে ভারতে আসার পথ আবিস্কারের পর ইউরোপীয়রা বাণিজ্যের উদ্দেশ্যে বাংলাসহ ভারতবর্ষে আগমন শুরুর করে। ১৫১৭ সালে পর্তুগিজরা বাংলায় আসে এবং চট্টগ্রামে এক বিরাট বন্দর গড়ে তোলে।পর্তুগিজদের পর আসে ওলন্দাজ বা ডাচরা। ১৬০২ সালে ডাচ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি স্থাপন হয়েছিল।৪ এদের প্রধান ঘাঁটি ছিল হুগলির চুচুড়াতে। ডাচরাই রাজশাহীতে বাণিজ্যের সূত্রপাত ঘটায়। ১৬৩২ সালে হুগলিতে মোগল সৈন্যদের নিকট পর্তুগিজদের পরাজয় ডাচদের ব্যবসাকে সম্প্রসারণ করে দেয়। ১৬৬০ সালে ডাচ গভর্নর ফন ডেন ব্রুক বাংলার ম্যাপ প্রণয়নের পর ১৭২৫ সালের পূর্বে কোন এক সময় ডাচ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি বড় কুঠি স্থাপন করে রেশম বাণিজ্য আরম্ভ করে। তাদের ব্যবসার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট হয়ে মুর্শিদাবাদ থেকে আগত মহাজের।১ 
রাজশাহী মহানগরীতে ডাচরা কখন ব্যবসা শুর করেছিল তার নির্দিষ্ট সময় এখনও আবিস্কার হয়নি। তবে রাজশাহী গেজেটিয়ার প্রণেতা ও’ ম্যালির কথা থেকে স্পষ্ট হয়, মুর্শিদাবাদ থেকে মোহাজেরেরা আগমন করে বসতি স্থাপন ও ওলন্দাজদের সঙ্গে ব্যবসায় সংশিষ্ট হয়।১ ইংলিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির পঞ্চম রিপোর্টের ১নং ভলিউমের তথ্য অনুসারে বাংলার নবাব ১৭২৫ সালে বোয়ালিয়ার বড়কুঠি রেশম কারখানাসহ রাজশাহী জমিদারি রামজীবনের নিকট অর্পণ করে।৬১১ এ তথ্য থেকে প্রমাণিত হয় সপ্তদশ শতাব্দীর শেষ বা অষ্টাদশ শতাব্দীর প্রথমার্ধের দিকে ডাচরা এখানে ব্যবসা-বাণিজ্য আরম্ভ করে এবং রাজশাহী বন্দরে পরিণত হয়। ও’ম্যালির ভাষায় বোঝা যায়, ডাচ, ফরাসি ও ইংরেজদের আগমনে ও দেশীয় ব্যবসায়ীদের সমন্বয়ে  অষ্টাদশ শতাব্দীর প্রথমার্ধ হতে বিংশ শতাব্দীর প্রথম পাদ পর্যন্ত বাণিজ্যিক কেন্দ্র হিসেবে রাজশাহী সমস্ত এশিয়া ইউরোপের সঙ্গে বাণিজ্য সম্পর্ক অক্ষুণ্ন রেখেছিল।১ ফলে বড়কুঠি ও বন্দরকে কেন্দ্র করে পদ্মার উভয় তীরে ও উত্তরবঙ্গের বড় বড় নদীর তীরে দেশি-বিদেশি রেশম ও নীল কুঠি তৈরি হয়েছিল। সরদা, মীরগঞ্জ, কাজলা, সুলতানপুর, গোদাগাড়ী, খরচাকা, বেলোড়া প্রভৃতি রাজশাহীর উল্লেখযোগ্য কুঠি। এ রকম রাজশাহী অঞ্চলে এ রকম ১৫০টি নীল কুঠি ছিল।৪  কাজী মোহাম্মদ মিছেরের রাজশাহীর ইতিহাস (১ম খ-) গ্রন্থে বাংলাদেশ রবার্ট ওয়াটশন কোম্পানির ১৫২টি কুঠি ও কারখানার কথা উল্লেখযোগ্য আছে।


রাজশাহীর কথা

আনারুল হক আনা

তৃতীয় সংস্করণ, এপ্রিল 2018

প্রকাশনা : DesktopIT


www.desktopit.com.bd